logo
logo
news image

খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তি দাবি

অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন ৯০’র ডাকসু ও সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের নেতারা।
মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা আরও বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন নানাবিধ গুরুতর শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছেন। তাকে রাখা হয়েছে পরিত্যক্ত ও নির্জন একটি কারাগারে। তার মামলা, জামিন ও চিকিৎসা নিয়ে যে ধরনের নেতিবাচক, কুৎসিত ও প্রতিহিংসামূলক তৎপরতা দেখা যাচ্ছে তা খুবই দুর্ভাগ্যজনক।
বিবৃতি দেয়া নেতারা হলেন- আমানউল্লাহ আমান, হাবিবুর রহমান হাবিব, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, নাজিম উদ্দিন আলম, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, সাইফ উদ্দিন আহমেদ মনি, খন্দকার লুৎফর রহমান, সালাহউদ্দিন তরুন এবং আসাদুর রহমান আসাদ।
বিবৃতিতে নেতারা বলেন, খালেদা জিয়া এদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় একজন রাজনীতিবিদ। তিনি এ দেশের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। এত বড় একজন মহান রাজনীতিবিদের সঙ্গে এমন অমানবিক আচরণ কোনো সামরিক জান্তা বা ফ্যাসিবাদী শাসনকেও হার মানায়। এতে করে দেশের আইন আদালতের প্রতি মানুষের সর্বশেষ আস্থাটুকুও আর অবশিষ্ট থাকবে বলে মনে হয় না। আর তাতে সরকারের প্রতি মানুষের ক্ষোভ ও ঘৃণাই কেবল তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে।
বিবৃতিতে নেতারা অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসেরও সুচিকিৎসা এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।
তারা বলেন, শিমুল বিশ্বাস ডায়াবেটিস, কিডনি, চোখের রোগসহ নানাবিধ জটিল রোগে আক্রান্ত। আশঙ্কাজনকভাবে তার দৈহিক ওজন কমে গেছে। কারাগারে তার কোনো সুচিকিৎসাই হচ্ছে না।

বারবার আবেদনের পরে আদালত তার সুচিকিৎসার নির্দেশ দিলেও কারা কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে তেমন কোনো গুরুত্ব দিচ্ছে না। তার মামলা ও জামিন নিয়েও টালবাহানা করা হচ্ছে। কারাবিধি অনুযায়ী পরিবার ও আত্মীয়স্বজনকেও তার সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top