logo
logo
add image
news image

ড্রিমল্যান্ড এমিউজমেন্ট ও ওয়াটার পার্ক

গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের হিলালপুর এলাকায় গড়ে ওঠা দেশের অন্যতম বিনোদন পার্ক ড্রীমল্যান্ড।

এটি প্রায় ৪০ বিঘা জমি নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় ২০০২ খ্রিস্টাব্দের ১৯ জানুয়ারী। পরবর্তী সময়ে আরো ৬০ বিঘা জমি যুক্ত হয় বৃহৎ এ বিনোদন পার্কে।

বিশে^র বিভিন্ন মিউজিয়াম পার্কের মতো এখানেও রয়েছে পর্যটকদের বিনোদন দিতে নানা রকম আয়োজন।

সিলেট-গোলাপগঞ্জ সড়কের পাশে গড়ে ওঠা ড্রীমল্যান্ড পার্কে পর্যটকদের জন্য রয়েছে বাম্পার কার, স্কাই ট্রেন, রোলার কোস্টার, মিউজিক্যাল ফাউন্টেইন, জায়ান্ট উটল, প্যারাট্রুপার, মিনি ট্রেন, সুইমিং বোর্ড, ডেঞ্জার হোন্ডার রাইড, নাইনডি মুভিসহ বিভিন্ন ধরনের ভিডিও গেমস।

ড্রীমল্যান্ড পার্কে দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা দিতে রয়েছে ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা। গোলাপগঞ্জের ড্রীমল্যান্ড পার্ক সিলেটের মধ্যে অন্যতম পার্ক হওয়ায় প্রতিদিন এখানে দর্শনার্থীর ভিড় লেগেই থাকে।

বিশেষ করে ঈদ, পূজা বা বিভিন্ন দিবসে দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে মনোমুগ্ধকর বিভিন্ন আয়োজন। এ সময় নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়ে থাকে।

পরিচালক: মনসুর হোসেন মুন্না

কিভাবে যাওয়া যায়: 

সিলেট বাস স্টেশন থেকে ৮ কিলোমিটার পূর্বে হিলালপুর পার্কের গেইট নামক স্থানে আসতে পারেন।

যে কোন ধরনের গাড়ি নিয়ে। যেমন- বাস, সিএনজি, নোহা, লেগুনা সহ ইত্যাদি। ভাড়া- বাস- ১২/=, সিএনজি- ১৫/=, লেগুনা-১০/=

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top