logo
logo
add image
news image

বাণিজ্য মেলায় খণ্ডকালীন চাকরি

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর তত্ত্বাবধানে বছরের শুরুতে মাসব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। এতে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়ে থাকে। যারা মেলায় নিজেদের পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসে বিক্রির পাশাপাশি চালায় নিজেদের প্রতিষ্ঠানের প্রচারও। মেলা চলাকালে প্রতিটি স্টলে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা যায়। এই ভিড় সামাল দিয়ে নিজেদের পণ্য বিক্রয় ও পণ্যের গুণাগুণ, ব্যবহারবিধি উপস্থাপন করার জন্য বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানই তাদের নিজেদের কর্মীর পাশাপাশি চুক্তিভিত্তিক খণ্ডকালীন কর্মী নিয়োগ করে থাকে। শিক্ষার্থীদের কাছে এই চাকরি দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মাঝে যারা খণ্ডকালীন চাকরিতে আগ্রহী, তাদের কাছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা পছন্দের স্থান। চাকরির পাশাপাশি বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জনের মাধ্যম হিসেবে বাণিজ্য মেলায় বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ করাকে মনে করে থাকেন কেউ কেউ। চাইলে আপনিও সেসব প্রতিষ্ঠানের হয়ে মেলায় খণ্ডকালীন বিক্রয়কর্মী হিসেবে যোগ দিতে পারেন।

খণ্ডকালীন বিক্রয়কর্মী হিসেবে বাণিজ্য মেলায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের হয়ে যারা কাজ করে থাকেন, তাদের বেশিরভাগ আসে বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে। বিগত বছরগুলো থেকে দেখা গেছে, বাণিজ্য মেলায় খণ্ডকালীন কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরাই বেশি অগ্রাধিকার পেয়ে এসেছেন। বিশেষ করে সদ্য স্নাতক অথবা বর্তমানে যারা স্নাতক সম্পন্ন করছেন, নিয়োগের ক্ষেত্রে তাদের প্রাধান্য দেওয়া হয়। তবে কিছু প্রতিষ্ঠানে এইচএসসি পাস করা প্রার্থীদেরও নিয়োগের ক্ষেত্রে সমান সুযোগ দেওয়া হয়।

বাণিজ্য মেলায় কাজ করার জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতার পাশাপাশি বাড়তি কিছু যোগ্যতার প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে যোগাযোগের দক্ষতা, উপস্থাপনার কৌশল, স্মার্টনেস, উপস্থিত বুদ্ধিমত্তা, ব্যক্তিত্ব ইত্যাদি বিষয় গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হয়। এ ছাড়া একজন প্রার্থী কতটা দক্ষ, সে বিষয়ও বিবেচনা করে থাকে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান। বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজের পূর্ব অভিজ্ঞতা আছে কি-না, তা দেখা হয়। এ ক্ষেত্রে কারও কাজের পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকলে নিয়োগের সময় তাদের কিছুটা অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। তবে পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া চাকরি পাওয়াদের তালিকাটাও বেশ বড়। অভিজ্ঞতা খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। কারণ, নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান মেলায় কাজ শুরু করার আগেই গ্রাহকের কাছে পণ্যটি কীভাবে উপস্থাপন করতে হবে, কীভাবে যোগাযোগের দক্ষতা বাড়াতে হবে ইত্যাদি নানাবিধ বিষয়ে ট্রেনিং দিয়ে থাকে।

বাণিজ্য মেলায় কাজ করতে চাইলে আপনাকে ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ করতে হবে। কারণ ব্যক্তিগত যোগাযোগের মাধ্যমেই বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দিয়ে থাকে। যেসব প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নেয়, তাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখলে মেলায় কাজ পাওয়া সহজ হয়। এ ছাড়া মেলায় যেসব ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান কর্মী সরবরাহ করে, তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করতে পারেন। বর্তমানে অনেক প্রতিষ্ঠান বাণিজ্যমেলায় নিয়োগের জন্য বিভিন্ন জব পোর্টাল এবং পত্রপত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে। আগ্রহী প্রার্থীদের কাছ থেকে সিভি চাওয়া হয়। আবেদনকারীদের সিভি যাচাই-বাছাই করে নিয়োগ দিয়ে থাকে। এ ছাড়া ফেসবুকে বিভিন্ন চাকরি প্রদানকারী এবং চাকরি প্রত্যাশীদের গ্রুপগুলোর মাধ্যমে লোকবল নিয়োগ দিয়ে থাকে।

বাণিজ্য মেলায় বিক্রয়কর্মী হিসেবে এক মাস চাকরির জন্য কর্মীরা প্রতিষ্ঠানভেদে ১০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পেয়ে থাকেন। এ ছাড়া সকালের নাশতা, দুপুরের খাবার, বিকেলের নাশতা, রাতের খাবার, ক্ষেত্রভেদে মোবাইল খরচ এবং যাতায়াত খরচও দিয়ে থাকে কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান। আতিকুর রহমান

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top