logo
logo
add image
news image

আজ মহান মে দিবস

আজ মহান মে দিবস বা আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস। শ্রমজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকার ঘোষণার দিবস। বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশে আজ সরকারি ছুটিসহ যথাযোগ্য সম্মান ও মর্যাদার সঙ্গে পালিত হবে দিবসটি। বাংলাদেশে এ বছর মে দিবসের প্রতিপাদ্য- ‘শ্রমিক-মালিক গড়ব দেশ; এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা-সংগঠন দিবসটি উপলক্ষে আজ শোভাযাত্রা, সমাবেশ, আলোচনাসভাসহ নানা কর্মসূচি পালন করবে। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন ও বেতারে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করা হবে এবং সংবাদপত্রগুলোতেও বিশেষ ক্রোড়পত্র ও নিবন্ধ থাকবে।

দিবসটি উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ দিবসটি উপলক্ষে শ্রমজীবী মানুষদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।

মানবসভ্যতার ভিত্তিভূমি রচিত হয়েছে মানুষের শ্রমের শক্তিতে। খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থানসহ সব মৌলিক চাহিদা পূরণ হয় শ্রমিকেরই শ্রমে-ঘামে। বিশ্বের অর্থনীতির চাকা ঘুরছে শ্রমিকেরই পেশির শক্তির বদৌলতে। অথচ বরাবরই সমাজের শোষিত ও অবহেলিত অংশ হলো শ্রমজীবী মানুষ।

যারা তৈরি করেন বিশাল স্থাপনা, যারা শ্রম দেন কারখানায়, যাদের হাতে ঘোরে অর্থনীতির চাকা- বণ্টনব্যবস্থার নির্মম বিচারে সেই শ্রমজীবী মানুষ বাস করেন বস্তিতে, তাদেরই ঘরে থাকে না অন্ন, তারা পরেন মলিন কাপড় আর তারাই বঞ্চিত চিকিৎসা ও শিক্ষা থেকে।

ধীরে ধীরে এসব নির্যাতন ও অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হতে থাকে। শ্রমিকরা সংগঠিত হতে থাকেন। ১৮ শতকের মধ্যভাগ থেকেই ইউরোপ ও আমেরিকায় শ্রমিকরা বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে নিজেদের অধিকার আদায়ে সংগঠিত হতে থাকেন। ১৮৮৬ সালের ৪ মে শিকাগো শহরের হে মার্কেটে শ্রমিকরা সমাবেশ করেন। ৮ ঘণ্টা কর্মসময় নির্ধারণের দাবিতে এই সমাবেশ চলছিল। অদূরে ছিল পুলিশের দল। এই সময় আন্দোলন ভণ্ডুল করার জন্য অজ্ঞাত এক ব্যক্তি পুলিশের ওপর বোমা নিক্ষেপ করে। শুরু হয় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও পুলিশের গুলিবর্ষণ। আন্দোলনরত শ্রমিকদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে ১০-১২ জন শ্রমিক মৃত্যুবরণ করেন। একজন পুলিশ কর্মকর্তাও নিহত হন। পরদিন ৫ মে উইসকনসিনের মিলওয়াকিতে ধর্মঘটরত শ্রমিকদের ওপর পুলিশের গুলিতে এক বালকসহ ৭ জন নিহত হন। পুলিশ হত্যার দায়ে গ্রেপ্তার হন অগাস্ট স্পিসসহ ৮ শ্রমিক নেতা। ১৮৮৭ সালের ১১ নভেম্বর আগস্ট স্পিসসহ ৬ শ্রমিক নেতাকে প্রকাশ্যে ফাঁসি দেওয়া হয়, যদিও তারা ছিলেন নিরপরাধ। একজনের ১৫ বছরের জেল হয়। আরেকজন বন্দি অবস্থায় আত্মহত্যা করেন। সেই বোমা নিক্ষেপকারীর পরিচয় অজানাই থেকে যায়।

১৮৮৯ সালে প্যারিসে ফরাসি বিপ্লবের শতবর্ষে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিকের প্রথম কংগ্রেসে শিকাগোর শ্রমিক আন্দোলন স্মরণে প্রতি বছর পহেলা মে উদযাপনের ঘোষণা দেওয়া হয়। পরের বছর দ্বিতীয় কংগ্রেসে প্রস্তাবটি আনুষ্ঠানিকভাবে শ্রমিক সংগঠনগুলো দ্বারা গৃহীত হয়।

প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাষ্ট্রীয়ভাবে মে দিবস উদযাপন উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল ৭টায় মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে। র‌্যালিটি দৈনিক বাংলা থেকে শুরু হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গিয়ে শেষ হবে।

মহান মে দিবস উপলক্ষে বিকাল ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে আগামী ৩ মে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় মে দিবস উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক।

এছাড়াও মে দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে র‌্যালি, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top